1. nasiruddinsami@gmail.com : sadmin :
মানিকগঞ্জে গ্রাম সুরক্ষায় যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রম - সংবাদ সারাদেশ ২৪
মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

মানিকগঞ্জে গ্রাম সুরক্ষায় যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রম

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৪৮ বার

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতাঃ

করোনা ভাইরাসের সংক্রামন ঠেকাতে ”আমার এলাকা আমরা সুরক্ষা রাখবো”। এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মানিকগঞ্জে ঘিওর উপজেলার কালিগঙ্গা নদী ঘেষা ঐহিত্যবাহী তরা এলাকার মঞ্জুর আহমেদ, শেখ বিল্টু, রনি,ইমরান, রাসেদ মোল্লা,রাজু, মুন্না,নুরুল, বিপ্লব,আলমগীর, সুমন, ইলিয়াস,রবিউল, শিহাবুর,হাবিবুল্লাহ,রাবিব,
ইমন সহ ২১জন যুবক ও তরুনরা তাদের গ্রামকে সুরক্ষায় সকাল সন্ধ্যা  স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। প্রতিদিন ভোরের সুর্য উঠার পরপরই এই যুবকরা মানবসেবায় নেমে পড়েন। করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ ঠেকাতে  এই যুবকেরা নিঃস্বার্থভাবে কাজ করায় এলাকার মানুষজন তাদের ওপর খুশি।
মানিকগঞ্জ জেলা শহর থেকে ৬ কিলোমিটার অদুরে কালিগঙ্গা নদী ঘেষা বিশাল জনবসতি নিয়ে গঠিত তরা গ্রাম। দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকে পুরো এই গ্রামকে সুরক্ষা রাখতে এলাকার ২১ জন যুবক মাঠে নেমেছেন। কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে  গ্রামে প্রবেশ করার ৬টি রাস্তার মুল পয়েন্ট,সকালের বাজার ও মানুষের বাড়ির আশপাশে গিয়ে তারা জীবাণু নাশক ষ্প্রে ছিটানো, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার ও মাইকিং করে মানুষজনকে সচেতন করে চলেছেন। সচেতনতার ফলে এই এলাকায় এখনো করোনা ভাইরাস আক্রমন করতে পারেনি।
দেখা গেছে, প্রতিদিন সকালের নিত্যপ্রয়োজনীয় কাচা বাজারের প্রত্যেক ব্যবসায়ীকে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে ব্যবসা পরিচালয় যুবকেরা সাহয্যে করে যাচ্ছেন।

এছাড়া হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা মানুষজনের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার পৌছে দিচ্ছেন। যুবকদের এমন উদ্দ্যগে এলাকাবাসী খুশি।
এলাকাবাসী বলেছেন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে  তরা গ্রামের মতো সারা দেশে যুবকরা তাদের নিজ নিজ এলাকায় এমন উদ্যোগ নিলো  করোনা ভাইরাসের বিস্তার কমে যেতে।
উদ্দ্যমী যুবক মঞ্জুর আহমেদ ও শেখ বিল্টু বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রামন ঠেকাতে গ্রামের কিছু সিনিয়রদের সাথে নিয়ে আমার ২১জন যুবক মাঠে নেমেছি। এতে আমাদের  কারো কোন স্বার্থ নেই। আমরা কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত হয়েছে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত করোনা মোকাবেলায় গ্রামে প্রবেশ করার ৬টি রাস্তার মুল পয়েন্ট,সকালের বাজার ও মানুষের বাড়ির আশপাশে গিয়ে তারা জীবাণু নাশক ষ্প্রে ছিটানো,হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার ও মাইকিং করে মানুষজনকে সচেতন করে যাচ্ছি। কারন আমার এলাকা সুরক্ষার দায়িত্ব আমাদের।
তারা আরো বলেন, প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আমারা করোনার সাথে যুদ্ধ করে গ্রামকে সুরক্ষা রাখার চেষ্টা করছি।
এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ওসমান গনি বলেন, এলাকার যুবকেরা দেশের এই ক্লান্তিকালে যে ভুমিকা রেখেছে তাদের নিয়ে আমরা গর্ব করি। আমাদের এলাকার যুবকদের মতো দেশের বিভিন্ন এলাকায় যদি এই মহৎ কাজ করা হয় তবে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারবে না।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. সোহেল মিয়া বলেন, যুবকরা এলাকাকে সুরক্ষার জন্য সকাল সন্ধ্যা যে কাজ করে যাচ্ছে সেজন্য ওদের স্যালুট জানাই। করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে তাদের এই ভাল কাজে আমার পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগীতা করে যাচ্ছি।
ঘিওর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, তরা গ্রামের যুবকরা মিলে দেশের এই বিপদের সময়  নিজ এলাকাকে সুরক্ষা রাখতে স্বেচ্ছা শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। তাদের এই সমাজ সেবা অন্য এলাকার যুবকদের উৎসাহিত করবে বলে আমি মনে করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2023 SangbadSaraDesh24.Com
Theme Customized By BreakingNews